পিআইবিতে সাংবাদিকতায় মাস্টার্স কোর্স, আবেদনের শেষ তারিখ ২৬ ডিসেম্বর ২০১৮ | লার্ন উইথ নাসিমূল

পিআইবিতে সাংবাদিকতায় মাস্টার্স কোর্স, আবেদনের শেষ তারিখ ২৬ ডিসেম্বর ২০১৮

প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশ (পিআইবি) গণমাধ্যম ও সাংবাদিকতা বিষয়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন দুই বছর মেয়াদি মাস্টার্স প্রোগ্রামে (১মপর্ব) ভর্তি প্রক্রিয়া শুরু করেছে। ভর্তির ক্ষেত্রে গণমাধ্যম ও সাংবাদিকতা পেশা সংশ্লিষ্টদের অগ্রাধিকার প্রদান করা হবে। ভর্তির আবেদন জমার শেষ তারিখ ২৬ ডিসেম্বর  ২০১৮ তারিখ।

পিআইবি অফিস থেকে আবেদনপত্র সংগ্রহ করতে হবে অথবা পিআইবি’র ওয়েবসাইট থেকে আবেদনপত্র ডাউনলোড করে পূরণ করতে হবে। পূরণকৃত আবেদনপত্র ২৬/১২/২০১৮ তারিখ পর্যন্ত‘প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশ, ৩ সার্কিট হাউস রোড, ঢাকা-১০০০’ ঠিকানায় জমা দিতে হবে।

 

আবেদন ফরম : https://goo.gl/it994i

 

আবেদনের যোগ্যতা

গণমাধ্যম ও সাংবাদিকতা বিষয়ে মাস্টার্স কোর্সে আবেদনের ন্যূনতম যোগ্যতা হিসেবে  স্নাতক (সম্মান/পাশ) অথবা সমমানের ডিগ্রিধারী আবেদন করতে পারবেন। তবে কোন পরীক্ষাতেই সিজিপিএ- ৫ এর মধ্যে ২.৫০ / ৪ এর মধ্যে ২.২৫ এর নিচে অথবা তৃতীয় শ্রেণি গ্রহণযোগ্য নয়।

আবেদন প্রক্রিয়া

পিআইবি’র ওয়েবসাইট (www.pib.gov.bd) থেকে আবেদনপত্র ডাউনলোড অথবা পিআইবি থেকে সরাসরি সংগ্রহ করা যাবে। ডাউনলোডকৃত আবেদন ফরম লিগ্যাল পেজ-এ প্রিন্ট দিয়ে পূরণ করতে হবে।পূরণকৃত আবেদনপত্রের সাথে সকল শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদপত্র ও নম্বরপত্রের সত্যায়িত কপি, দুই (০২) কপিপাসপোর্ট সাইজের সদ্য তোলা সত্যায়িত রঙিন ছবি, জাতীয় পরিচয়পত্রের কপি ও প্রাথমিক আবেদন ফি বাবদ ১০০০/- (এক হাজার টাকা মাত্র) ‘প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশ (পিআইবি), ৩ সার্কিট হাউস রোড, ঢাকা-১০০০’ বরাবর নির্ধারিত সময়ের মধ্যে জমা দিতে হবে। অসম্পূর্ণ বা ভুল তথ্য প্রদান করলে আবেদনপত্র বাতিল বলে গণ্য হবে।

ভর্তি পরীক্ষা ও নম্বর বণ্টন

বাংলা, ইংরেজি, গণমাধ্যম ও সাংবাদিকতা, সাধারণ জ্ঞান বিষয়ে ৭০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।লিখিত পরীক্ষার সময় ১ ঘণ্টা ৩০ মিনিট।

 

লিখিত পরীক্ষার নম্বর বণ্টন:

বাংলা : ১৫ নম্বর

ইংরেজি : ১৫ নম্বর

গণমাধ্যম ও সাংবাদিকতা:  ২৫ নম্বর

সাধারণ জ্ঞান : ১৫ নম্বর

মোট :  ৭০ নম্বর

লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা সকল মূল সনদপত্রসহ মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে।

 

ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল

ক. ভর্তি পরীক্ষার চূড়ান্ত ফলাফল:

লিখিত পরীক্ষা:  ৭০

মৌখিক পরীক্ষা:  ২০

গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠানে কাজের অভিজ্ঞতা:  ১০

মোট : ১০০

উল্লিখিত নম্বরের ভিত্তিতে চূড়ান্ত মেধা তালিকা প্রণয়ন করা হবে।

 

খ. দুই বা ততোধিক আবেদনকারীর মেধাস্কোর সমান হলেগণমাধ্যম ও সাংবাদিকতা বিষয়ে পেশাগত অভিজ্ঞতার নম্বরের ভিত্তিতে মেধাস্কোর দেয়া হবে। এরপরেও মেধাস্কোর সমান হলে আবেদনকারীর  স্নাতক পর্যায়ে পরীক্ষার প্রাপ্ত নম্বর অনুসারে মেধাক্রম নির্ধারণ করা হবে।

গ. ভর্তির ফলাফলের সাথে প্রথম ও দ্বিতীয় অপেক্ষমাণ তালিকা প্রকাশ করা হবে।

পূরণকৃত আবেদনপত্রের সাথে যা যা  দিতে হবে:

ক. সকল সনদপত্রের (এসএসসি/সমমান, এইচএসসি/সমমান,  স্নাতক সম্মান/পাশ বা সমমান, স্নাতকোত্তর সম্মান/পাশ বা সমমান ইত্যাদি) সত্যায়িত কপি

খ. সকল নম্বরপত্রের (এসএসসি/সমমান, এইচএসসি/সমমান, স্নাতক সম্মান/পাশ বা সমমান, স্নাতকোত্তর সম্মান/পাশ বা সমমান ইত্যাদি) সত্যায়িত কপি

গ. জাতীয় পরিচয়পত্রের কপি

ঘ. পাসপোর্ট সাইজের সদ্য তোলা দুই (০২) কপি সত্যায়িত রঙিনছবি

ঙ. আবেদনপত্র জমা দেওয়ার সময় ১০০০/- (এক হাজার টাকা মাত্র) জমার রশিদ সংযুক্ত করতে হবে।

প্রয়োজনীয় তথ্যাদি:

আসন সংখ্যা (১মপর্ব) : ৫০ (পঞ্চাশ)
আবেদনপত্র সংগ্রহ ও জমাদানের তারিখ : ১৭/১২/২০১৮ থেকে ২৬/১২/২০১৮
ভর্তি পরীক্ষা : ৪ জানুয়ারি, ২০১৯ (শুক্রবার), সকাল ১০টা থেকে ১১:৩০ মিনিট
সম্ভাব্য ক্লাস শুরুর তারিখ : ২৬ জানুয়ারি, ২০১৯
ক্লাসের সময়সূচি : শুক্রবার: সকাল ৯টা ৩০ মিনিট থেকে (বিরতিসহ) বিকাল ৫টা
শনিবার: সকাল ৯টা ৩০ মিনিট থেকে বিকাল ৫টা
রবিবার: সকাল ৯টা ৩০ মিনিট থেকে দুপুর১২টা ৩০ মিনিট
ভর্তি ফি (১মপর্ব) সর্বমোট ৩১,০০০/- : ভর্তির আবেদনপত্র ফি: ১০০০/- (এক হাজার টাকা মাত্র)
(একত্রিশ হাজার টাকা মাত্র) ভর্তি, রেজিস্ট্রেশন ও অন্যান্য ফি বাবদ: ১৮,০০০/- (আঠারো হাজার টাকা মাত্র)
টিউশন ফি: ১২,০০০/- (বারো হাজার টাকা মাত্র) (মাসিক ১০০০/-)

বি.দ্র. ভর্তির সময় আবেদনপত্রের ফি, এক মাসের বেতনসহ এককালীন ২০,০০০/- (বিশ হাজার টাকা মাত্র) জমা দিতে হবে।

 

Avatar

Nasimul Ahsan

গণমাধ্যম কর্মী। তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ে আগ্রহী। বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউটে সহকারী প্রশিক্ষক হিসেবে কর্মরত আছি।

সকল লেখা দেখুন

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আমার সম্পর্কে

Avatar

Nasimul Ahsan

গণমাধ্যম কর্মী। তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ে আগ্রহী। বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউটে সহকারী প্রশিক্ষক হিসেবে কর্মরত আছি।

ফেসবুকে যুক্ত থাকুন

সাবস্ক্রাইব করুন